ই-পেপার | রবিবার , ১৪ জুলাই, ২০২৪

বন্যার্তদের সহায়তায় সিলেট-সুমামগঞ্জে চবি অধ্যাপক 

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সদস্য এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক রেজাউল করিমের উদ্যোগে মানবিক সংগঠন “এসো মানুষের জন্য কিছু করি ” সহযোগিতায় ২৬ জুন সিলেটের পানিবন্দি কানাইঘাট উপজেলার বিভিন্ন আশ্রয়কেন্দ্র এবং বাড়িতে ত্রাণ এবং ২৭জুন সুনামগঞ্জ জেলার কালীপুর এলাকার বিভিন্ন জায়গায় ত্রাণ ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সদস্য রেজাউল করিম বলেন, যে কোনো দুর্যোগে আওয়ামী লীগ সবসময় জনগণের পাশে থাকে। সরকার বা বিরোধী দল যেখানেই আওয়ামী লীগ থাকুক না কেন, আমাদের দলের নেতাকর্মীরা সর্বদা সারাদেশের মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন, তাদের জন্য কাজ করছেন।

তিনি আরও বলেন, টানা দুইবারের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সিলেটের মানুষ। পানি আমাদের জীবন বাঁচায় আবার ঠিক বিপরীত ঘটনাও ঘটে তার প্রমাণ এই বন্যা। কী দুর্বিষহ জীবন যাপন করতে হচ্ছে বন্যার্তদের। ঘর বাড়ি সবকিছুই ছেড়ে আসতে হয়েছে জীবন বাঁচাতে। এসব মানুষের পাশে দাঁড়ানো মানুষ হিসেবে আমার জন্য অবশ্যই কর্তব্য। সেই তাড়না থেকে চট্টগ্রাম থেকে সিলেট যাই।

  • চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক রেজাউল করিম করোনার শুরু থেকেই মানুষের জন্য কাজ করছেন। তার নানা উদ্যোগ সব মহলে প্রশংসা পেয়েছে। এর মধ্যে, করোনায় টিউশন হারিয়ে বিপাকে চবি শিক্ষার্থীদের মাঝে আর্থিক সাহায্য প্রদান।

রমজানে প্রতিদিন মানুষের মাঝে ইফতার বিতরণ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে দৈনিক মজুরি ভিত্তিতে নিয়োজিত কর্মচারীদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী প্রদান। চট্টগ্রামে প্রতিষ্ঠিত দেশের প্রথম অস্থায়ী ৬০ শয্যার ‘ফিল্ড হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়ার কাছে অনুদানের চেক হস্তান্তর। বিনামূল্যে মাস্ক বুথ এবং করোনা টিকার অনলাইন আবেদন বুথ চালু করেন। তীব্র শীতে যখন পথের ধারে মানুষগুলো কাঁপছিলো তখন পথে পথে ঘুরে অসহায় ছিন্নমূল মানুষদের মাঝে শীতবস্ত্র (কম্বল) বিতরণ। এছাড়াও নিম্নআয়ের মানুষদের সহায়তা, ঈদে চবি শিক্ষার্থীদের বাসায় ঈদ উপহার পৌঁছে দিয়েছেন তিনি।