ই-পেপার | রবিবার , ১৪ জুলাই, ২০২৪

চাঁদা না দেওয়ায় সন্ত্রাসী হামলা

চাঁদা না দেওয়ায় কেনা জায়গায়  স্থাপনা করতে গিয়ে জমির মালিকদের ওপর স্থানীয় কতিপয় সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়েছে। এসময় জমির মালিকদের মধ্যে ৭ জন ব্যক্তি আহত হয়েছেন। আহতরা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিয়েছেন।

গতকাল বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রাম নগরীর চান্দগাঁও থানাধীন খাজা রোড সাবান ঘাটা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, আব্দুর রহিম, সাইফুল ইসলাম, তৈয়ব, এরশাদুল ইসলাম, আবু তৈয়ব, আবু জাফর ও মিসবাহ উদ্দিন।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, বুধবার সকাল ৮টার দিকে নগরীর খাজা রোড সাবান ঘাটা বড় পুকুর এলাকায় ক্রয়কৃত জায়গায় স্থাপনা নির্মাণ সামগ্রী নিয়ে আসেন জমির মালিকরা। এসময় জায়গার ওপর শ্রমিকরা নির্মাণ কাজ করছিলেন। হঠাৎ সাড়ে ৮টার দিকে স্থানীয় সন্ত্রাসী শামিম, শাহীন, জুয়েল, তুহিন ও রুহানের নেতৃত্বে দেশিয় অস্ত্র এবং লাঠিসোটা দিয়ে জায়গার মালিকদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। পরে নির্মাণ সামগ্রীগুলো নিয়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। এসব সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা ও চাঁদাবাজির বিস্তর অভিযোগ রয়েছে বলে জানান স্থানীয়রা।


হঠাৎ স্থানীয় সন্ত্রাসী শামিম, শাহীন, জুয়েল, তুহিন ও রুহানের নেতৃত্বে দেশিয় অস্ত্র এবং লাঠিসোটা দিয়ে জায়গার মালিকদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। তাদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা ও চাঁদাবাজির বিস্তর অভিযোগ রয়েছে বলে জানান স্থানীয়রা।


আহতরা জানান, আমরা পরিচিত বন্ধুরা মিলে চান্দগাঁও থানাধীন খাজা রোড সাবান ঘাটা বড় পুকুর এলাকায় বেশ কয়েকবছর আগে একটি জায়গা ক্রয় করি। এই জায়গায় স্থাপনা করতে গেলে চাঁদা দাবি সহ জমি দখলের চেষ্টা করে কতিপয় সন্ত্রাসীরা। এবার স্থানীয় সন্ত্রাসী শামিম, শাহীন, জুয়েল, তুহিন ও রুহানের নেতৃত্বে দেশিয় অস্ত্র এবং লাঠিসোটা দিয়ে আমাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় আমাদের ৭ জন আহত হয়।

তারা জানান, আহতরা হাতে, পায়ে, চোখে ও মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়। এরপর আমরা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিয়েছি। সন্ত্রাসী আমাদের সবধরনের নির্মাণ সামগ্রীগুলো নিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় আমরা আইনগত ব্যবস্থা নিচ্ছি।