ই-পেপার | রবিবার , ১৪ জুলাই, ২০২৪

১০ জুলাই পবিত্র ঈদুল আযহা

আগামি ১০ জুলাই পবিত্র ঈদ-উল আযহা পালিত হবে। বাংলাদেশের আকাশে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা গেছে। সেই হিসাবে জিলহজ মাসের ১০ তারিখে পালিত হয় ঈদ-উল আযহা।

সন্ধ্যায় পবিত্র ঈদ-উল আযহার তারিখ নির্ধারণের লক্ষ্যে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা শুরু হয়। বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের পূর্ব সাহানে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় সভাপতিত্ব করেন ধর্ম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান। সভা শেষে জানানো হয়, জিলহজ মাসের চাঁদ গিয়েছে।
ত্যাগের মহিমায় সারা বিশ্বের মুসলমানের মতো বাংলাদেশের মুসলমানরাও পবিত্র ঈদ-উল আযহা উদ্যাপনের প্রস্তুতি নিচ্ছে।
নবী ইবরাহীম (আ.), তার স্ত্রী হাজেরা ও ছেলে ইসমাঈলের ত্যাগের স্মৃতি বিজড়িত উৎসব ঈদ-উল আযহা। আল্লাহর নৈকট্য লাভের জন্য মানুষ পশু কোরবানি দেয়। কোরআনে আল্লাহ ত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন। আল্লাহ বলেন, ‘হে ঈমানদারগণ! তোমরা তোমাদের উপার্জিত হালাল মালের কিছু অংশ এবং আমি যা তোমাদের জন্য জমিন হতে বের করেছি, তার অংশ ব্যয় করো’, (বাক্বারাহ ২৬৭)। এ কোরবানি শুধুমাত্র পশু কোরবানি নয়, নিজের পশুত্ব, নিজের ক্ষুদ্রতা, স্বার্থপরতা, হীনতা, অহংকারের কোরবানি করা।